ফুড পয়জনিং হচ্ছে?

May 25, 2017,11:01 pm, By Riyad Hossain

post image

গরমের সময় ফুড পয়জনিং একটি প্রচলিত সমস্যা। কোনো খাবার খেয়ে বার বার বমি, জ্বর, পেট ব্যথা, পাতলা পায়খানা শুরু হলে তাকে ফুড পয়জনিং বলে। সঠিক সময়ে চিকিৎসা না নিলে এটি অনেক সময় মৃত্যুর কারণ হতে পারে। ফুড পয়জনিং এড়াতে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা জরুরি।

জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের স্বাস্থ্য বিভাগে প্রকাশিত হয়েছে এই সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

১. মাংস ভালোভাবে রান্না করুন

মাংস ভালোভাবে রান্না না করে খাওয়া ফুড পয়জনিংয়ের অন্যতম একটি কারণ। মাংসের মধ্যে বেশির ভাগ সময় প্যাথোজেন থাকে। একে সঠিক তাপমাত্রায় রান্না না করলে, প্যাথোজেন থেকে যায়। এ ধরনের মাংস খেলে ফুড পয়জনিং হতে পারে। তাই মাংস ভালোভাবে রান্না করে খান।

২. পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখুন

পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা যেকোনো রোগব্যাধি থেকে সুরক্ষার অন্যতম উপায়। আর গরমে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে একটু বেশিই খেয়াল রাখা দরকার। খাওয়ার আগে ও পরে ভালোভাবে হাত ধোন। পাশাপাশি খাবার রান্নার আগে হাত ধুয়ে নিন।

এ ছাড়া রান্না ও খাওয়ার জন্য ব্যবহৃত তৈজসপত্র ভালোভাবে পরিষ্কার করুন। এই ছোট ছোট বিষয়গুলো ফুড পয়জনিং প্রতিরোধে কাজ করবে।

৩. রেফ্রিজারেটরকে পর্যাপ্ত ঠান্ডা রাখুন

রেফ্রিজেরেটর বা ফ্রিজের তাপমাত্রা পর্যাপ্ত পরিমাণ ঠান্ডা থাকলে খাবার ভালোভাবে সংরক্ষিত থাকে। তাই রেফ্রিজেরেটরের তাপমাত্রা কমপক্ষে পাঁচ ডিগ্রি পর্যন্ত রাখুন।

৪. বেশি খাবার খাবেন না

খাবার বেশি খাওয়ার কারণে পেটে অস্বস্তিভাব তৈরি হতে পারে। তাই এ সময় বেশি খাবার খাওয়া এড়িয়ে যান।  

৫. রাস্তার খাবার খাবেন না

রাস্তার খাবার সাধারণত তেমন স্বাস্থ্যকর হয় না। আর গরমে এসব খাবার আরো অস্বাস্থ্যকর হয়ে ওঠে। তাই এই খাবারগুলো এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। এ ছাড়া ঘরের কোনো বাসি খাবারও খাবেন না। এটি থেকেও ফুড পয়জনিং হতে পারে।

ফুড পয়জনিং একটি জটিল সমস্যা। তাই এ ক্ষেত্রে নিজে নিজে ওষুধ  না সেবন করে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধ খান।

Related articles

post image post image post image

©MyBlog.com

- 2017
Facebook Twitter LinkedIn GooglePlus